কিভাবে ব্লগার সাইট গুগল সার্চ কনসোল যুক্ত করবেন

কিভাবে ওয়েবসাইট Google Search Console-এ যুক্ত করে ওনারশীপ ভেরিফাইড করবেন





ওয়েবসাইট তৈরি করি টাকা উপার্জন করার জন্য। আর এই টাকা উপার্জন করতে আমাদের ওয়েবসাইটে বেশি বেশি ভিজিটরের প্রয়োজন।যা কখনোই এমনিতেই আসে না। ওয়েবসাইট গুগল সার্চ কনসোল যুক্ত করে ওনারশীপ ভেরিফাইড করিয়ে প্রচুর ভিজিটর আনার মাধ্যমে অনেক অর্থ রোজগার করা যায় যা সম্পুর্ণ ফ্রীতে পাওয়া সম্ভব।

তা কৌশল খাটিয়ে আনতে হয়। অনেক বেশি ভিজিটর আনতে ওয়েবসাইটটি গুগল সার্চ কনসোলের সাথে যুক্ত করতে হবে। কিভাবে যুক্ত করবো এবং ওনারশীপ ভেরিফাইড করা যায় সে সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করবো ও জানবো।

আজকের টিউটোরিয়ালে আমরা যা শিখবো-

 

ফ্রী ওয়েবসাইট কোনটি?

 

গুগল সার্চ কনসোল কি?

 

কিভাবে ওয়েবসাইট গুগল সার্চ কনসোল যুক্ত করবেন?

 

কিভাবে সার্চ কনসোলে

ওনারশিপ ভেরিফাইড করবেন?

 

উপসংহার

 

 

আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিটর বাড়িয়ে টাকা ইনকাম করতে গেলে নিচের বিষয়গুলো অনুযায়ী ওয়েবসাইটটি সেটিংস করতে পারলে বেশি ভিজিটর আসলে বেশি আয় করা যাবে।

ফ্রী ওয়েবসাইট কোনটি?

 

ওয়েবসাইট দুই ধরণের হয়ে থাকে। একটি হচ্ছে টাকা দিয়ে টপ লেবেল ডোমেন ও হোস্টিং কেনার মাধ্যমে ওয়েবসাইট তৈরি করা।

এতে টাকা দিয়ে কেনা টেমপ্লেট লাগালে ভালো হয়। যেমন-ডটকম,ডটওআরজি,ডটনেট,ডটইডু,ডটআইও ইত্যাদি।

অপরটি হচ্ছে সম্পুর্ণ ফ্রীতে ওয়েবসাইট তৈরি করা। এটি বানাতে কোন টাকার প্রয়োজন নেই এবং একদম ফ্রীতে সবকিছু। এর থিমটি ফ্রিতে নিয়ে কাস্টমাইজড করা যায়। যেমন ব্লগস্পট ডটকম ও ওয়ার্ডপ্রেস ডটকম। তাছাড়া এক বছরের জন্য অনলাইনে কিছু ফ্রী ডোমেন ও হোস্টিং পাওয়া যায়।

গুগল সার্চ কনসোল কি?

 

গুগল সার্চ কনসোল হচ্ছে গুগলের একটি যন্ত্র,যা ওয়েবসাইটকে গুগল সার্চে নিযে গিয়ে হাজার হাজার ভিজিটর এনে দিতে পারে। সাইটের কীওয়ার্ডগুলোকে রোবটের মাধ্যমে গুগল সার্চ পেজে এক নম্বারে তুলতে পারে। সাইটের পোস্ট এবং পেজগুলোকে ইনডেক্স করে।

এইটিএমএল ট্যাগ, ফাইল,এ্যানালাইটিক্স, ডোমেন ও ট্যাগ ম্যানেজার ভেরিফাইডের ফলে সাইটের কীওয়ার্ডগুলোকে গুগল সার্চ ইঞ্জিনের দ্বারা অনেক অনেক ভিজিটর এনে দিতে পারে।

কিভাবে ওয়েবসাইট গুগল সার্চ কনসোল যুক্ত করবেন?

 

সাইটটি জমা দিতে এন্ড্রয়েড ফোনের অফিসিয়াল ব্রাউজার ক্রোম ব্যবহার করবো। এখানে সার্চে গিয়ে blogger.com লিখে সার্চ করলে এখানে সাইটটি চলে আসবে এবং যে ইমেল একাউন্টে আমাদের ওয়েবসাইটি তৈরি করা হয়েছে। সেই ইমেলে লগিন করবো নিচের ছবিতে লক্ষ্য করুন সাইটের ড্যাসবোর্ড আসবে।

"কিভাবে




এখানে উপরে বামপাশে থ্রী লাইনে ক্লিক করবো, তাহলে বেশ কয়েকটি অপশনের লিস্ট এসে যাবে নিচের ছবির মতো

"কিভাবে

এখানে Google Search Console অপশনে ক্লিক করলে যে ইন্টারফেস আসবে, সেখানে পাশাপাশি দুটি বাটন থাকবে।

★ DOMAIN

★URL PREFIX

পরের বাটন URL PREFIX এ ক্লিক করবো। নিচের ছবিতে দেখুন।

"কিভাবে

তারপর নিচের দিকে একটি টেক্স ফিল্ড আসবে সেখানে আমাদের ওয়েবসাইটের লিংকটি পেস্ট করে দিতে হবে।

এজন্য আমরা চলে যাব অপর একটি ব্রাউজারে যন গুগল ব্রাউজার। সেখানে গিয়ে সার্চ বক্সে blogger.com লিখে সার্চ দেবো।

তাহলে যে ফিল্ড আসবে ওখানে পুর্বের সাইটের  View blog অপশনে ক্লিক করলে সাইটটি খুলে যাবে এবং এর উপরে শেয়ার বাটনে ট্যাপ করে নিচে কয়েকটি বাটন আসবে।সেখান থেকে copy to clipboard বাটনে ক্লিক করে সাইটের লিংকটি কপি করে নেবো।

তারপর আবার পুর্বের ক্রোম ব্রাউজারের পূর্বের ফিল্ডে ফিরে এসে উপরের ছবিতে কালো এ্যারো চিহ্নিত স্থানে লিংক পেস্ট করে দিবো।

নিচে CONTINUE বাটনে প্রেস করলেই আমাদের ওয়েবসাইটটি সার্চ কনসোলের সাথে যুক্ত হযে গেল এবং সাইটটি জমা দেয়া হলো। এখন থেকে সাইটের ভিজিটর অনেক বাড়তে থাকবে।

কিভাবে সার্চ কনসোলে

ওনারশিপ ভেরিফাইড করবেন?

 

Google Search Console-এ ওয়েবসাইটি ভেরিফাইড করলে আরো ভিজিটর বেড়ে যাবে। ওনারশীপ ভেরিফিকেশনে নিচের ফাইলগুলো ভেরিফাই করতে হয়।

Affiliated product

HTML file

HTML Tag

Domain

Google Analytics

Tag manager

Affiliated productঃ-

Affiliated product  টি গুগল সার্চ কনসোল অটোমেটিক Verify হয়ে থাকে। অর্থাৎ আমরা যখনেই ব্লগার সাইট সার্চ কনসোলে জমা দিই, তখনেই সাথে সাথে উল্লেখিত অপশনটি ভেরিফাই হযে যায়।

HTML fileঃ-

এটি verify করতে এইচটিএমএল কোডটি ডাউনলোড করে সাইটের হোস্টিং সি-প্যানেলে public_file এ আপলোড  করার পর আবার গুগল সার্চ কনসোলে এসে verified বাটনে ক্লিক করলে ভেরিফাই হয়ে যাবে।

HTML Tagঃ-

এইখানে একটি এইচটিএমএল কোড রয়েছে তা কপি করে অন্য একটি ব্রাউজারে গিয়ে ওয়েবসাইটের ড্যাসবোর্ডে  থ্রী লাইনে ক্লিক করবো। তারপর যে অপশনগুলো আসবে, সেখানথেকে Theme অপশনে ক্লিক করলে মোবাইল ফোনে ব্লগার ড্যাসবোর্ডের নতুন ভার্সন একটি ত্রিভুজ চিহ্ন আসবে।এখানে ক্লিক করলে কয়েকটি অপশন আসবে।

এখানে Edit HTML এ ট্যাপ করবো। তাহলে থিমের এইচটিএমএল কোডগুলো অপেন হবে। ওখানে <head> এর নিচে ঐ কোডটি পেস্ট করে দিয়ে উপরে ডানদিকে থ্রী ডটে ক্লিক করবো। এরপর কয়েকটি অপশন আসবে, সেখান থেকে Save অপশনে ক্লিক করলে কোডটি থিমে সেট হয়ে গেল।

তারপর পুর্বের সেই আগের মেনুতে ফিরে এসে
HTML Tag এর নিচে Verify বাটনে ক্লিক করলে ভেরিফাইড হয়ে যাবে। উপরের ভেরিফাই অপশনগুলো থেকে যেকোন তিনটি অপশন ভেরিফাই করলেই হবে।

নিচের স্ক্রীনসটে দেখুন গুগল সার্চ কনসোলে কয়েকটি ভেরিফাইড অপশন।

"কিভাবে




এভাবে ওয়েবসাইট Google Search Console-এ যুক্ত করে ওনারশীপ ভেরিফাইড করতে পারবেন।

এ সম্পর্কি আরো কিছু কিছু টিউটোরিয়ালঃ-

 

সার্চ কনসোলে ব্লগ যুক্ত করুন(ভিডিও)

 

উপসংহার

পরিশেষে বলা যায় যে আমরা ব্লগার সাইট বা ওয়ার্ডপ্রেস সাইট যাই তৈরি করি না কেন? আমাদের উদ্দেশ্য হবে একটাই তা হলো সাইটে বেশি করে ভিজিটর নিয়ে এসে অনেক বেশি ইনকাম করা বা উপার্জন করা।

3 thoughts on “কিভাবে ওয়েবসাইট Google Search Console-এ যুক্ত করে ওনারশীপ ভেরিফাইড করবেন”

  1. Pingback: কিভাবে ওয়েবসাইটকে গুগল সার্চে ১নম্বার রেঙ্কে আনবেন-Website seo tools

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares